Total: ৳ 0.00
Total: ৳ 0.00

বিভিন্ন ধরনের টেপ এর নাম ও ব্যবহার – জানুন বিস্তারিত

আমাদের আশেপাশে নিত্যদিনের কাজে যে টেপগুলোর সাথে আমরা অধিক বেশি পরিচিত তা হল স্কচ টেপ ও ব্ল্যাক টেপ। বৈদ্যতিক তার জোরা লাগাতে কিংবা ক্রিকেট খেলায় টেনিস বলে টেপ প্যাঁচানোর জন্য ব্ল্যাক টেপের সাথে কম-বেশি সবাই পরিচিত। অন্যদিকে কাগজের পণ্য বা পণ্য প্যাকেজিং এর জন্য স্কচ টেপ এর ব্যবহার রয়েছে সর্বত্র। তবে এই দুই ধরনের টেপের নাম ও ব্যবহার সম্পর্কে অনেকেরই জানা থাকলেও অন্যান্য প্রয়োজনীয় টেপ এর ব্যাবহারবিধিগুলো অজানা। তাই চলুন জেনে নেই বিভিন্ন ধরনের টেপ এর ব্যবহার সম্পর্কে ঃ

১. Duct Tape :

আপনি যদি ওয়াটার রেসিস্টেন্ট, ক্রাফটিং বা DIY বিভিন্ন প্রজেক্তের সাথে সম্পৃক্ত থাকেন তবে Duct Tape আপনার কাজকে করবে অনেক বেশি সহজ। Duct Tape এর রয়েছে বিভিন্ন ধরনের কার্যক্ষমতা। যেমন ঃ

> ওয়াটার রেসিস্টেন্ট হওয়ায় Duct Tape দিয়ে গার্ডেন ওয়াটার হোস পাইপের লিকেজ সমস্যা খুব সহজেই সমাধান করা যায়।

> Duct Tape দিয়ে প্লাস্টিকের বালতির ফাটল খুব সহজেই বন্ধ করা যায় এবং এতে পানির লিকেজ সমস্যাও দ্রুত সমাধান করা যায়।

> Duct Tape দিয়ে অনেকগুলো ইলেকট্রিক তার বা বই একসাথে জড় করে বাধিয়ে রাখা যায়।

> আকর্ষণীয় ডিজাইনের অনেক Duct Tape রয়েছে যেগুলো ক্রাফটিং এর বিভিন্ন কাজ যেমন ঃ কলমদানিতে পেঁচানো ইত্যাদিতেও ব্যবহৃত হয়।

Duct Tape
Duct Tape

অনলাইনে অর্ডার করতে এখানে ক্লিক করুন

২. Masking Tape :

পেইন্টিং থেকে শুরু করে কিবোর্ডের ধুলাবালি পরিষ্কার সকল কাজেই মাস্কিং টেপের ব্যবহার অপরিসীম। সাধারনত দেয়ালে কিংবা কাগজে নির্দিষ্ট কোন এরিয়ায় রঙ করার সময় মাস্কিং টেপের ব্যবহার বেশ লক্ষণীয়। তবে এর বাইরে মাস্কিং টেপের ব্যবহার রয়েছে অন্যান্য ক্ষেত্রেও। সেগুলো নিম্নরুপ ঃ

> ঘরের দেয়ালে রঙ করার সময়, রঙ করার পাত্রে রঙ ঢালার পর সেখানে খুব সহজেই দাগ লেগে যায় এবং যা পরবর্তীতে উঠানো বেশ কষ্টসাধ্য কাজ হয়ে যায়। তবে পাত্রে রঙ ঢালার পূর্বে মাস্কিং টেপ দিয়ে সেটা কভার করে দিলে পরবর্তীতে শুধুমাত্র মাস্কিং টেপটি তুলে ফেলার মাধ্যমে খুব সহজেই রঙ করার পাত্রটি চকচকে পরিষ্কার রাখা সম্ভব।

> আপনি যদি ২টি বস্তুকে আঠার সাহায্যে একসাথে ধরে জোড়া লাগাতে চান, তবে সেটি অনেকক্ষেত্রেই কষ্টকর ও সময়সাধ্য ব্যাপার হয়ে যায়। তবে মাস্কিং টেপ ব্যবহার করে আপনি খুব সহজেই ২টি বস্তুকে একত্রে শুকানোর আগ পর্যন্ত আটকিয়ে রাখতে পারেন এবং জোড়া লাগার পর কোন রকম দাগ ছাড়াই মাস্কিং টেপটি টেনে তুলতে পারেন।

> হ্যান্ড স এর মাধ্যমে কাঠ কাটার সময় অনেক সময় স টি পিছলে নির্দিষ্ট রেখার উপর থেকে সরে যেতে পারে। তাই কাঠ কাটার পূর্বে নির্দিষ্ট রেখা বরাবর মাস্কিং টেপ লাগিয়ে দিলে স পিছলে জাবার কোন সম্ভাবনা থাকে না।

> ল্যাপটপ কিংবা কম্পিউটারের কিবোর্ডে ময়লা চিটচিটে দাগ কিংবা ধুলাবালি পরলে তা পরিষ্কার করা সত্যিই কষ্টসাধ্য কাজ। তবে আপনি যদি মাস্কিং টেপের ব্যাপারে জানেন, তবে কিবোর্ডের ময়লা দাগ নিমিষেই পরিষ্কার করা সম্ভব।

Masking Tape এর ব্যবহার
Masking Tape

অনলাইনে অর্ডার করতে এখানে ক্লিক করুন

৩. Flex Tape :

আপনার নতুন কিংবা পুরাতন পানির বালতিটি কি ফেটে গেছে? উপায় না পেয়ে এখন ফেলে দিচ্ছেন? ফেলবেন না! আপনার জন্য রয়েছে একটি ম্যাজিক সল্যুশন! Flex Tape ব্যবহার করে আপনি ফেটে যাওয়া নতুন কিংবা পুরাতন বালতির লিকেজ সমস্যা দ্রুত সমাধান করতে পারেন। এরজন্য বালতি বা টাংকির যে স্থানে ফেটে গেছে বা লিকেজ সমস্যা দেখা দিয়েছে সেই স্থানটি ভালভাবে মুছে পরিস্কার করে পরিমানমত Flex Tape কেটে লাগিয়ে নিন আর নিজেই দেখুন এর ম্যাজিক।

বিভিন্ন ধরনের টেপ এর নাম ও ব্যবহার
Flex Tape

অনলাইনে অর্ডার করতে এখানে ক্লিক করুন

বিভিন্ন ধরনের টেপ এর নাম ও ব্যবহার

৪. Thread Tape : বাসা-বাড়ি কিংবা অফিসে পানির পাইপ বা পানির কল প্রতিস্থাপনের সময় যেই টেপ সবচেয়ে বেশি ব্যবহার হয়ে থাকে তার নাম Thread Tape. Thread Tape পানির পাইপের থ্রেডে পেঁচানো হয়, যাতে পানির পাইপটি অন্য আরেকটি পাইপ বা কলের সাথে খুব শক্তভাবে জোড়া বা প্রতিস্থাপন করা যায় এবং পানির প্রবাহ বেশি থাকলেও যাতে খুলে না যায়।

Thread Tape

অনলাইনে অর্ডার করতে এখানে ক্লিক করুন

৫. Transparent Double Sided Adhesive Tape দেয়ালে কোন ছবির ফ্রেম বা শোপিস রাখার জন্য কাঠের রেক প্রতিস্থাপন করতে প্রায়শই পেরেক ব্যবহার করতে দেখা যায়। অনেকক্ষেত্রেই পেরেক ব্যবহারের ফলে পরবর্তীতে সেখানে কোন ছবি প্রতিস্থাপন না করা হলে বা পেরেক তুলে ফেললে দেয়ালের সৌন্দর্য নষ্ট হয়। তবে Transparent Double Sided Adhesive Tape ব্যবহার করলে তা খুব সহজেই দেয়ালের উপর যেকোন ছবির ফ্রেম বা কাঠের শোপিস দেয়ালের কোন ক্ষতি না করেই প্রতিস্থাপন করা যায়। এতে যেমন অল্প সময়ে ঘরের দেয়ালে আপনার পছন্দের ফ্রেম প্রতিস্থাপন করা যায় তেমনই দেয়ালের সৌন্দর্য অটুট থাকে বছরের পর বছর।

অনলাইনে অর্ডার করতে এখানে ক্লিক করুন

৬. Measuring Tape : কোন বস্তুর দৈর্ঘ্য ও প্রস্থ মাপার জন্য Measuring Tape ব্যবহার করা হয়ে থাকে। এই Measuring Tape গুলো খুব সহজেই বস্তুটির দৈর্ঘ্য ও প্রস্থ অনুযায়ী টেনে বড় কিংবা ছোট করা যায়। আকারভেদে বিভিন্ন সাইজের Measuring Tape লক্ষ্য করা যায়। এগুলো হল ২ মিটার, ৩মিটার, ৫ মিটার, ৭.৫ মিটার, ৮ মিটার, ১০ মিটার, ২০ মিটার, ৩০ মিটার, ৫০ মিটার ইত্যাদি।

বিভিন্ন ধরনের টেপ এর নাম ও ব্যবহার
Measuring Tape

অনলাইনে অর্ডার করতে এখানে ক্লিক করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published.

X